top of page
Search

গরমের হালকা রান্না...

গরমের বেশীক্ষন রান্নাঘরে থাকা খুবই কষ্টকর, তাই রান্না যত তাড়াতাড়ি হবে ততই ভালো। সামান্য তেল মশলায় অথবা একেবারে তেল মশলা ছাড়া এমন কিছু রান্না, যা স্বাস্থ্যকর হওয়ার পাশাপাশি সুস্বাদু ও বটে।‌‌ যা আপনারা দিনের যেকোনো সময় খেতে পারেন। রেসিপি দিলেন বাংলাদেশের স্বনামধন্য রন্ধনবিশেষজ্ঞ নাজিয়া ফারহানা....

এগ সালাদ


কী কী লাগবে


কিউব করে কাটা সেদ্ধ আলু ১ টি

বেদানা আধা কাপ

গোলমরিচ ১ চা-চামচ

মেয়োনেজ আধা কাপ

লবণ স্বাদমতো

টুকরো করে কাটা সেদ্ধ ডিম ৪ টি



কিভাবে বানাবেন


সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ঠান্ডা করে ইচ্ছে মতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।



ওটস শেক


কী কী লাগবে


২ কাপ খেজুর

১ কাপ ওটস গুঁড়ো

১ কাপ টক দই

১২-১৪ টা বরফের টুকরো

১ কাপ জল

১ টেবিল চামচ মধু

২ টেবিল চামচ ড্রাই ফ্রুটস কুচি


কিভাবে বানাবেন


একটা মিক্সিতে টুকরো করা খেজুর টা ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। তাতে গুঁড়ো করা ওটস, টক দই, বরফের টুকরো, এক কাপ জল, মধু দিয়ে ভালো করে মিক্সিতে পেস্ট করে নিন। এবার একটা শরবতের গ্লাসে মিশ্রণটা ঢেলে ওপর থেকে ড্রাই ফ্রুটস ছড়িয়ে নিয়ে সার্ভ করুন সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর ওটস শেক।



ওটস স্যুপ


কী কী লাগবে


ওটস দুই টেবিল চামচ,

দুধ এক কাপ,

পেঁয়াজ কুচি একটি,

রসুন কুচি দুই কোয়া,

ধনেপাতা কুচি সামান্য,

গোলমরিচের গুঁড়ো সামান্য,

তেল পরিমাণমতো

লবণ স্বাদমতো



কিভাবে বানাবেন

প্রথমে একটি প্যানে তেল গরম করে এতে পেঁয়াজ কুচি এবং রসুন কুচি দিয়ে ভাজতে থাকুন। বাদামি হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। অন্য একটি ‌প্যানে পানির মধ্যে ওটস সিদ্ধ করুন। ঘন হয়ে গেলে এর মধ্যে দুধ দিয়ে পাঁচ মিনিট রান্না করুন। এবার এতে ভাজা পেঁয়াজ ও রসুন দিয়ে নাড়ুন। সবশেষে লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়ো দিয়ে নেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন। ধনেপাতা কুচি দিয়ে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন দারুণ সুস্বাদু ওটস স্যুপ।



স্টিমড ক্যাবেজ রোল


কী কী লাগবে


বাঁধাকপির পাতা ৬টা,

মুরগির কিমা ২ কাপ,

গাজর আধা কাপ,

কাঁচা মরিচকুচি ১ চা-চামচ,

সয়া সস ১ টেবিল চামচ,

অলিভ অয়েল ১ চা-চামচ,

গরমমসলা গুঁড়া আধা চা-চামচ,

জায়ফল-জয়ত্রীগুঁড়া সামান্য,

গোলমরিচগুঁড়া সিকি চা-চামচ,

লবণ সামান্য


কিভাবে বানাবেন


বাঁধাকপির পাতা খুলে সামান্য লবণ মেখে নিন। গাজরকুচি করে নিন। মাংসের কিমার সঙ্গে গাজর, অলিভ অয়েল, কাঁচা মরিচ, সয়া সস, গরমমসলা গুঁড়া, জায়ফল-জয়ত্রী গুঁড়া, গোলমরিচ গুঁড়া সব একসঙ্গে মেখে নিন। কপির পাতার ভেতর এই মিশ্রণ ঢুকিয়ে রোল বানিয়ে নিন। এবার স্টিমারে রেখে ভাপে দিন। সেদ্ধ হলে নামিয়ে নিন। গরম-গরম পরিবেশন করুন।


স্টিমড কোফতা


কী কী লাগবে


মুরগি কিংবা খাসির কিমা ৪০০ গ্রাম,

আদা বাটা এক টেবিল চামচ,

রসুন বাটা এক টেবিল চামচ,

পেঁয়াজ বাটা তিন টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ বাটা আধা টেবিল চামচ,

টক দই এক টেবিল চামচ,

ধনেপাতা কুচি আধা টেবিল চামচ,

গাজর কুচি আধা কাপ

জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ,

মরিচের গুঁড়া এক চা চামচ,

গোলমরিচের গুঁড়া এক টেবিল চামচ,

পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,

দুধে ভেজানো পাউরুটি এক টুকরা,

তেল তিন টেবিল চামচ ও

লবণ স্বাদমতো



কিভাবে বানাবেন

প্রথমে একটি ব্লেন্ডারে মাংসের কিমা, আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা, পেঁয়াজ কুচি, টক দই, কাঁচামরিচ বাটা, মরিচের গুঁড়া, পাউরুটি ও জিরা গুঁড়া নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। বেশি পাতলা করে ব্লেন্ড করবেন না। আর পুরোপুরি মিহি করারও প্রয়োজন নেই।

এবার একটি বাটিতে নিয়ে এর মধ্যে লবণ, ধনেপাতা কুচি ও গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালো করে মেশান। এখন কোফতার মতো ছোট ছোট বল তৈরি করে নিন।  এখন একটি স্টিম মেশিনে কোফতা গুলো নিয়ে অন্তত ১৫ মিনিট স্টিম দিন।

ব্যস, খুব সহজেই তৈরি হয়ে গেলে স্টিমড কোফতা। এবার সস্ দিয়ে পরিবেশন করুন।


রেসিপি এবং ছবি সৌজন্যেঃ নাজিয়া ফারহানা

Comments


bottom of page