top of page
Search

রেস্তোরাঁর রান্না, এবার বাড়িতেই..

বাড়ির রোজকার ঝোল ঝাল চচ্চড়িতে বিরক্ত; ওদিকে এই শীতে কাবু হয়ে বাইরে খেতে যেতেও ইচ্ছে করছে না? ভারী মুশকিল! সমাধান একটাই, বাড়িতে থাকা উপকরণ দিয়ে ম্যাজিক হতে পারে আপনার রান্নাঘরেই!

ওদিকে খাবারগুলো কিন্তু শুধুমাত্র সুস্বাদু হলেই চলবে না, হতে হবে রেস্তোরাঁর মতো সুন্দর ও। বাড়িতে বসেই আপনি এবার বানাতে পারবেন একেবারে মায়ের রেস্তোরাঁর মত খাবার। কীভাবে? চলুন দেখে নিই..

ক্রিসপি চিকেন


কী কী লাগবে

চিকেনের বড় সাইজের কয়েকটি টুকরো, সয়া সস, টোম্যাটো কেচাপ, আদা বাটা, রসুন বাটা, গোলমরিচ গুঁড়ো, ইনস্ট্যান্ট নুডলস্ মশলা, ময়দা, কর্নফ্লাওয়ার, নুন, গার্লিক পাউডার, লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, জল, সাদা তেল



কীভাবে বানাবেন

চিকেন খুব ভালো করে ধুয়ে নিন। একটি পাত্রে সয়া সস, টোম্যাটো কেচাপ, আদা বাটা, রসুন বাটা, গোলমরিচ গুঁড়ো, নুন, ইনস্ট্যান্ট নুডলস্ মশলা দিয়ে খুব ভালো করে মেশান।ব্যাটার তৈরি হয়ে গেলে সেটি দিয়ে কম করে দুই ঘণ্টা চিকেন ম্যারিনেট করে রেখে দিন। এবার অন্য একটি পাত্রে ময়দা, কর্নফ্লাওয়ার, নুন, গার্লিক পাউডার, লঙ্কাগুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো দিয়ে শুকনো শুকনোই মেশান। এই মিশ্রণটিতে একটুও যেন জল না পড়ে।এবার এই শুকনো ময়দার মিশ্রনে একটি ম্যারিনেট করা চিকেন পিস ভালো করে মাখিয়ে নিন। এরপর ময়দার মিশ্রণের গুঁড়ো মাখানো চিকেন এক পাত্র জলে কয়েক সেকেন্ড ডুবিয়ে রাখুন।জল থেকে চিকেনের পিসটি তুলে ফের ময়দার শুকনো মিশ্রণে মাখিয়ে নিন। একই রকমভাবে প্রত্যেকটি পিস তৈরি করুন। সব শেষে ডুবো তেলে অল্প আঁচে চিকেন ডিপ ফ্রাই করুন। টমেটো সস ও মেয়োনিজ এর সাথে পরিবেশন করুন।

ফ্রেঞ্চ ফ্রাই


কী কী লাগবে

আলু ৪ টা বড় সাইজের, লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ, চাট মশলা ১ চা চামচ, বিট লবণ স্বাদ অনুযায়ী, তেল প্রয়োজন মতো




কীভাবে বানাবেন

আলু গুলো লম্বা করে কেটে নিন। এবার কেটে রাখা আলু গুলো ভালো করে ৩-৪ বার ধুয়ে নিতে হবে। তারপর জলে আলু দিয়ে ওর মধ্যে ৩-৪ চা চামচ নুন দিয়ে গ্যাস চালু করে হাই ফ্লেমে ৭৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড গরম হলে (মানে জলে হাত দিলে ১ সেকেন্ড হাত না রাখা যায়) এবার লো ফ্লেমে ১৫ মিনিট রাখতে হবে। ১৫ মিনিট পর আবার একটা ছাঁকনি তে জল ঝরিয়ে আবার নতুন করে জল দিয়ে হাই ফ্লেমে সেদ্ধ করতে হবে ৪-৫ মিনিট। এবার জল থেকে আলু তুলে একটা কাপড়ে ১ ঘন্টার জন্য পাখার নিচে বা রোদে রেখে শুকিয়ে নিতে হবে।এবার কড়াইয়ে তেল দিয়ে তেল হালকা গরম হলে মিডিয়াম আঁচে আলু গুলো হাল্কা করে ভেজে নিতে হবে। তারপর একটা ট্রেতে রেখে ৩-৪ ঘন্টার জন্য ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। ৩-৪ ঘন্টা পর ফ্রিজার থেকে বের করে নিতে হবে। তারপর আবার কড়াইতে তেল দিয়ে তেল গরম হলে হাই ফ্লেমে আলু দিয়ে মুচমুচে করে ভেজে নিয়ে ছাঁকনি তে রেখে তেল ঝরিয়ে নিতে হবে।এবার একটা গামলায় রেখে তার মধ্যে স্বাদ অনুযায়ী বিট লবণ, লংকা গুড়ো, চাট মশলা দিয়ে গরম অবস্থাতেই ঝটপট মিশিয়ে নিতে হবে। সার্ভিং প্লেট এ সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

চিকেন মোমো


কী কী লাগবে

২ কাপ ময়দা, ২ চামচ তেল, ১ কাপ চিকেন কিমা, ১ কাপ পেঁয়াজ কুচি, ১ চামচ আদা কুচি, ১/২ কাপ ধনে পাতা কুচি, ২ চামচ বাটার, নুন


কীভাবে বানাবেন

একটি বাটিতে চিকেনের কিমা, পেঁয়াজ কুচি, আদা কুচি, ধনেপাতা কুচি, নুন ও মাখন নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। অন্য একটি বাটিতে অল্প নুন আর পরিমাণ মতো জল দিয়ে ময়দা শক্ত করে মেখে নিন। লেচি কেটে পাতলা করে ফেলে মাঝে পুর ভরে ইচ্ছে মতো শেপে মোমো গুলো গড়ে নিন। ২০-২৫ মিনিট স্টিম করে ঝাল‌ ঝাল চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

চাইনিজ ফ্রায়েড রাইস


কী কী লাগবে

দেড় কাপ দেরাদুন রাইস, ১ টেবিল চামচ আদার কিমা, ২ টেবিল চামচ রসুনের কিমা, ৪ টেবিল চামচ পেঁয়াজ কুচি, অর্ধেক গাজর কুচি, আধ কাপ বিন্স কুচি, আধ কাপ বাঁধাকপি কুচি, আধ কাপ ক্যাপ্সিকাম কুচি, ১০০ গ্রাম পনির ছোট টুকরো করা, ১ টেবিল চামচ সয়া সস, ১ চা চামচ টমেটো সস, ১/২ চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো, ৪ চা চামচ ভিনিগার, সাদা তেল, স্বাদ মত নুন ও চিনি


কীভাবে বানাবেন

কড়ায় তেল গরম করে কুচানো আদা, রসুন, পেঁয়াজ, সমস্ত সবজি ভাজুন। চাল ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রেখে ৭০% সেদ্ধ করে নিন। নুন, চিনি, সয়াসস আর ভিনিগার মেশান।

এবার ভেজে রাখা সবজি, ভাত, গোলমরিচ গুঁড়ো, ধনেপাতা বা পেঁয়াজ পাতা কুচি, টমেটো সস মিশিয়ে নামিয়ে নিলেই তৈরী।

সেজোয়ান চিকেন


কী কী লাগবে

৪৫০ গ্রাম চিকেন, ১ টা পেঁয়াজ কুচি,

১ টা ক্যাপ্সিকাম চৌকো করে কাটা, ১ চা চামচ রসুন কুচি, ১ চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো, ২-৩ টে শুকনো লঙ্কা, ১ টা ডিম, ১ টেবিল চামচ টমেটো সস, ২ টেবিল চামচ সয়া সস, ১ টেবিল চামচ ভিনিগার, ১ টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার, স্বাদ অনুযায়ী নুন, সাদা তেল




কীভাবে বানাবেন

চিকেন ধুয়ে নুন, হলুদ, গোলমরিচ গুঁড়ো, ডিম, কর্নফ্লাওয়ার ও ভিনিগার মিশিয়ে একঘন্টা রেখে দিন। তেল গরম করে চিকেনের টুকরো গুলো লালচে করে ভেজে তুলে রাখুন। ওই তেলে পেঁয়াজ আদা রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন। ক্যাপসিকাম কুচি, নুন ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে চিকেন টা দিয়ে দিন। সামান্য উষ্ণ গরম জল দিয়ে ফুটতে দিয়ে ঘন হলে নামিয়ে নিন। ওপর থেকে সাদা তিল ও পেঁয়াজ পাতা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

চিকেন তন্দুরি


কী কী লাগবে

চিকেন তন্দুরির টুকরো করা, টকদই, লেবুর রস, আদা-রসুনের পেস্ট, কসৌরি মেথি, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো

ধনে গুঁড়ো, গরম মশলা, চাট মশলা, বেসন (রোস্টেড), সরষের তেল, মাখন


কীভাবে বানাবেন

মাংস ভালো করে ধুয়ে লেবুর রস, নুন, আদা-রসুনের পেস্ট দিয়ে ম্যারিনেট করে ফ্রিজে রাখুন এক ঘন্টা। অন্য দিকে শুকনো কড়াইতে লঙ্কা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, কসৌরি মেথি, গরম মশলা, বেসন নেড়ে নিন। এবার একটি বাটিতে দু চামচ ফেটানো টকদই, কাঁচালঙ্কা বাটা, সরষের তেল, আদা-রসুনের পেস্ট আর বাকি মশলা মিশিয়ে নিন ভালো করে। ওর মধ্যে ম্যারিনেট করা চিকেনের টুকরো দিয়ে আবারও ভালো করে মাখিয়ে নিন। ফ্রিজে রাখুন তিন থেকে চার ঘন্টা। এবার প্রেসার কুকারে সামান্য তেল দিয়ে উল্টে পাল্টে নিন। তবে কুকারের মুখ ঢেকে রেখে সেদ্ধ করবেন। মিনিট ১৫ সময় লাগবে। হয়ে এলে একটা প্লেটে নিয়ে ওর মধ্যে বাটার আর লেবুর রস দিন। এক চামচ কসৌরি মেথি গুঁড়ো, এক চামচ গরম মশলা, এক চামচ চাট মশলা দিয়ে কাবাবের মশলা বানিয়ে রাখুন। সেই মশলাই ছড়িয়ে দিন উপর থেকে। ব্যাস আপনার তন্দুরি চিকেন রেডি পরিবেশনের জন্য।


চিকেন বিরিয়ানি


কী কী লাগবে

মাংস ১ কেজি, বাসমতি চাল ৭৫০ গ্রাম, আলু ৫ টি, লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, দারচিনি, লবঙ্গ, এলাচ, তেজপাতা, পেঁয়াজ কুচি, রসুন বাটা, বিরিয়ানি মশলা, বেরেস্তা, কেওরা জল, লেবুর রস, কেশর, দুধ, ঘি, নুন, সেদ্ধ ডিম(ঐচ্ছিক), সরষের তেল।


কীভাবে বানাবেন

চাল ২ ঘন্টা ভিজিয়ে জল ঝরিয়ে নিন। নুন হলুদ লঙ্কা গুঁড়ো মাখিয়ে আলু ৭৫% সেদ্ধ করে তুলে নিন। সরষের তেল গরম করে গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে লাল করে ভেজে মাংস, আদা রসুন বাটা, টকদই, বিরিয়ানি মশলা, লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে ৫ মিনিট কষে অল্প জল দিয়ে প্রায় সেদ্ধ করুন। লবঙ্গ এলাচ আর তেজপাতা দিয়ে জল ফুটিয়ে তার মধ্যে চাল, লেবুর রস, নুন দিয়ে ফুটিয়ে চাল ৮০% সেদ্ধ হলে জল ঝরিয়ে নিন। এবার ঘি মাখানো হাড়িতে একে একে মাংস, আলু, ভাত পরপর লেয়ার করে রেখে ওপরে দুধে ভেজানো কেশর, কেওরা জল, বেরেস্তা, বিরিয়ানি মশলা ছড়িয়ে দমে বসান। গরম গরম পরিবেশন করুন রায়তার সাথে।

মিক্সড হাক্কা নুডলস


কী কী লাগবে

সেদ্ধ চাউমিন ১ প্যাকেট, কুচোনো পেঁয়াজ ৩টি, কুচোনো রসুন ৮-৯ কোয়া, লম্বা করে কাটা সবুজ ক্যাপসিকাম ১ টি, লম্বা করে কাটা গাজর ১ টি, ঝুরি ঝুরি করে কাটা বাঁধাকপি ১/৪ ভাগ, কুচি করে কাটা বিন্স অল্প, চিকেন টুকরো করে সেদ্ধ করা ২০০ গ্ৰাম, চিংড়ি মাছ ভাজা অল্প, ডিমের ভুজিয়া ২ টি ডিমের, টুকরো করে কাটা পনির ১৫০ গ্ৰাম, সাদা তেল পরিমাণ মতো, টমেটো সস, চিলি সস, সয়া সস ৩ টেবিল চামচ করে, নুন, চিনি স্বাদমতো, গোলমরিচ গুঁড়ো ২চামচ, কাঁচালঙ্কা কুচি ৬টি, স্প্রিং অনিয়ন কুচি করে কাটা অল্প।



কীভাবে বানাবেন

তেল গরম করে কুচোনো সব সবজি, পেঁয়াজ কুচি, কাঁচালঙ্কা কুচি, রসুন কুচি, নুন, চিনি, গোলমরিচ গুঁড়ো সতে করে নিন। সেদ্ধ চিকেন, ভাজা চিংড়ি মাছ, ডিমের ভুজিয়া, পনির, তিনরকম সস নেড়েচেড়ে সেদ্ধ চাউমিন মেশান। স্প্রিং অনিয়ন কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

পিৎজা


কী কী লাগবে

ময়দা ২ কাপ, টোম্যাটো সস: ১০০ গ্রাম, টোম্যাটো: ১টি, পেঁয়াজ: ২টি, চিলি ফ্লেক্স: ১ টেবিল চামচ, বেকিং পাউডার: ১ টেবিল চামচ, চিনি: ১ টেবিল চামচ, প্রসেসড চিজ: ১০০ গ্রাম, মাশরুম: ৪টি, ক্যাপসিকাম: ১/২ টি, অরিগ্যানো: ১ চা চামচ, মোজারেলা চিজ: ১/২ কাপ, ড্রাই ইস্ট: ১ চা চামচ, জল: পরিমাণ মতো


কীভাবে বানাবেন

প্রথমে বানিয়ে ফেলতে হবে পিৎজার রুটি (পিৎজা বেস)। এটি তৈরি হবে দু’টি পাত্রে। প্রথম পাত্রে একে একে ময়দা, পরিমাণ মতো নুন ও বেকিং পাউডার নিয়ে ভাল করে ছেঁকে নিন। এই মিশ্রণের মাঝখানে সামাণ্য জায়গা করে এক চা চামচ তেল ঢেলে দিন। এর পর অন্য পাত্রে ঈষৎ-উষ্ণ জলে ইস্ট ও চিনি ঢেলে ভাল করে গুলে নিন। মিশ্রণ তৈরি হয়ে গেলে তা ১৫ মিনিটের জন্য সরিয়ে রাখুন। ইস্ট তৈরি হয়ে গেলে আগের পাত্রের ময়দা মাখায় জল ঢালার সঙ্গে সঙ্গে তা যোগ করে দিন। এ বার এটি ৪-৬ ঘণ্টা রেখে দেওয়ার পরে শেষ বারের মতো আর একবার ভাল করে মেখে নিন। এবার আভেনটি আগে থেকে একটু গরম করে নিন ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। মেখে রাখা মণ্ডটি থেকে বানিয়ে ফেলুন গোল বেস, এবং প্রিহিটেড অভেনে ১০ মিনিট বেক করুন। তৈরি আপনার পিৎজা বেস। এর পরে পৃথক পৃথক পাত্রে ক্যাপসিকাম, টোম্যাটো, পেঁয়াজ ও মাশরুম (আপনি চাইলে নিজের মতো অন্য সব্জিও বাছতে পারেন) কেটে কেটে রাখুন। দু’টি আলাদা পাত্রে প্রসেসড ও মোৎজারেল্লা চিজও গ্রেট করে রাখুন। আপনার তৈরি করা পিৎজা বেসে এ বার টোম্যাটো কেচাপ ছড়িয়ে তার উপর মাখিয়ে দিন প্রসেসড চিজ। এর পর একে একে দিয়ে দিন কেটে রাখা সব্জিগুলি। তার উপর আর একটি স্তরে পুরু করে ঢালুন মোজারেলা চিজ। সর্বশেষ ধাপে এই পিৎজা বেসকে আভেনে দশ মিনিট বেক করুন ২৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। আপনার পিৎজা তৈরি। উপরে অরিগ্যানো ও চিলি ফ্লেকস ছড়িয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম।


চিকেন হরিয়ালী


কী কী লাগবে

ধনেপাতা বাটা- ৪ টেবিল চামচ, কাঁচালঙ্কা বাটা- পরিমাণ মতো, পোস্ত বাটা- ২ টেবিল চামচ, নারকেল বাটা- ২ টেবিল চামচ, চিকেন- ১ কেজি, সরষের তেল- পরিমাণ মতো, জিরে গুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ, নুন- পরিমাণ মতো, আদাবাটা- ২ চামচ, রসুনবাটা- ১ চামচ, ৪-৫ টা বড় পেঁয়াজ কুচানো, হলুদ গুঁড়ো- ১ টেবলচামচ, লঙ্কা গুঁড়ো- ১ টেবলচামচ, টকদই- ১ কাপ, গরম মশলা গুঁড়ো- ১ চামচ


কীভাবে বানাবেন

চিকেন ভাল করে ধুয়ে জল ঝরিয়ে টকদই দিয়ে ১ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখতে হবে। কড়াইতে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজতে হবে। সোনালী রঙ ধরলে তাতে রসুনবাটা দিয়ে একটু ভাজাভাজা হলে হলুদ গুঁড়ো, আদাবাটা দিয়ে কষতে হবে। তারপর জিরে গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, নুন, ধনে গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে কষতে হবে। একটু ভাজা হলে পোস্ত বাটা, নারকেল বাটা, ধনেপাতা বাটা আর কাঁচা লঙ্কা বাটা দিয়ে ভাল করে নাড়তে হবে। খুব শুকনো হলে সামান্য জল দিন। একটু ফুটে উঠলে চিকেন টা দিয়ে দিতে হবে। ভাল করে নেড়ে ঢাকা দিয়ে আঁচ কমিয়ে দিন। মাঝে মাঝে ঢাকা খুলে নেড়ে দিয়ে আবার ঢাকা দিয়ে দিতে হবে। ১৫-২০ মিনিটের মধ্যে চিকেন সেদ্ধ হয়ে যাবে। স্বাদ দেখে নিয়ে নামানোর আগে গরম মশলা গুঁড়ো ছড়িয়ে নামিয়ে দিন।

পালং পনির


কী কী লাগবে

পালং শাক ১ আঁটি, পনির কিউব করে কাটা, গোটা জিরে - ১/২ চা চামচ, শুকনো লঙ্কা - ২টো, ৩ টে পেঁয়াজ (মাঝারি মাপের), জিরে গুঁড়ো - ১/২ চামচ, ধনে গুঁড়ো - পরিমাণমতো, আদা কুচি, রসুন, কাঁচালঙ্কা - ২টো, টমেটো কুচি - ১টা, ২ টুকরো দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গ, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো - ১ চামচ, হলুদ গুঁড়ো - ১/২ চামচ, সাদা তেল - পরিমাণমতো, মাখন- ২ চা চামচ, স্বাদ অনুযায়ী নুন, চিনি


কীভাবে বানাবেন

পালং শাক গরম জলে সেদ্ধ করে জল ঝরিয়ে নিন। তারপর পনির ছোট ছোট করে কেটে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে তাতে সামান্য নুন দিয়ে পনির হালকা ভেজে তুলে নিন। এবার গোটা জিরে, শুকনো লঙ্কা, পেঁয়াজ কুচি, আদা কুচি, রসুন, কাঁচালঙ্কা, টমেটো কুচি সব একসঙ্গে কড়াইতে দিয়ে ভালভাবে নেড়ে নিন। তারপর মিক্সিতে পালং শাক ও এই সমস্ত ভাজা উপকরণ দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। কড়াইতে তেল ও মাখন দিয়ে একে একে দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গ, রোস্টেড জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো দিয়ে মিডিয়াম আঁচে কয়েক মিনিট কষান। এবার বেটে রাখা পালং শাক ও মশলা দিয়ে সামান্য জল দিন। মাঝারি আঁচে আরও কয়েক মিনিট কষান। এরপর নুন, চিনি, ভেজে রাখা পনির, গরম মশলা দিয়ে দিন। হালকা আঁচে ঢাকা দিয়ে রান্না করুন। তারপর আঁচ নিভিয়ে নামিয়ে নিন।

মক্কী কি রোটি, সরষো দা শাগ


কী কী লাগবে

১/২ কেজি সর্ষে শাক, ১০০ গ্রাম পালং শাক, ১০০ গ্রাম বেথুয়া শাক, ২ টি পেঁয়াজ কুচি, ২" আদা কুচি, রসুন ১০-১২ কোয়া কুচি, ৪-৫ টি কাঁচা লঙ্কা কুচি, ৫ বড় চামচ ঘী, ২ কাপ+ ২ চামচ মক্কী( ভুট্টার) আটা, ১ বড় চামচ ঘি, নুন স্বাদ মত, কসুরী মেথি, মাখন ২ চামচ


কীভাবে বানাবেন

সর্ষে শাক পালং শাক আর বেথুয়া শাকের পাতা ভালো করে বেছে কেটে ধুয়ে জল ঝরিয়ে নিন। কড়াইয়ে শাক দিয়ে নুন দিন যাতে জল বেড়িয়ে সেদ্ধ হয়ে যায়। এবার মিক্সিতে পিউরি করে নিন। কড়াইয়ে ঘি দিয়ে

পেঁয়াজ কুচি দিয়ে গোলাপী করে ভাজুন। একে একে আদাকুচি, রসুন কুচি, কাঁচা লংকা কুচি দিয়ে কিছুক্ষণ ভেজে শাকের পিউরি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ২ চামচ ভুট্টার আটা মিশিয়ে নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিন।

বাকি ভুট্টার আটা, নুন, ঘি, কসৌরি মেথি মিশিয়ে গরম জল দিয়ে মেখে ঢেকে রাখুন একঘন্টা। লেচি কেটে, হাতে তেল মেখে চেপে চেপে রুটি গুলো বানিয়ে সেঁকে নিন। ওপরে মাখন মাখিয়ে পরিবেশন করুন।

bottom of page